মেহেরপুরে দু’টি বিদেশী পিস্তল ও গুলিসহ সন্ত্রাসী টুনু গ্রেপ্তার

মুজিবনগর নিউজ ২৪ কম : মেহেরপুর শহরের পশুহাটপাড়া সংলগ্ন বক্ষব্যাধি ক্লিনিকের সামনে অভিযান চালিয়ে ২টি বিদেশী পিস্তলসহ আবু সাইদ টুনু (৪০) নামের এক সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে মেহেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) শেখ মোস্তাফিজুর রহমান এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন। গ্রেপ্তারকৃত সন্ত্রাসী জেলার গাংনী উপজেলার কাজিপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। শহরের শিশুবাগান পাড়ায় সে ১০ বছর ধরে বসবাস করে আসছেন। সে একটি হত্যা মামলায় ৩২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি।
এ উপলক্ষে রবিবার সকালে মেহেরপুর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করা হয়।
এসময় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মেহেরপুর জেলায় নাশকতামূলক ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড সৃষ্টি করার লক্ষ্যে সরকার বিরোধী অপশক্তির সমর্থনকারী হিসেবে আবু সাইদ টুনু কাজ করে আসছিলেন। তিনি আরো বলেন, আবু সাইদ টুনু একটি সক্রিয় রাজনৈতিক দলের সমর্থক। প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদে বেশ কিছু তথ্য পাওয়া গেছে। তার কাছে থেকে উদ্ধার করা পিস্তল দুটি ইউএসএ এর তৈরি হলেও পার্শ্ববর্তি দেশ ভারত থেকে আমদানি করা হয়েছে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শহরের বক্ষ ব্যাধি ক্লিনিকের সামনে অভিযান চালানো হয়। এসময় তাকে গ্রেপ্তার করে তল্লাশি চালানোর সময় সে তার কোমরে রাখা দুটি পিস্তলের একটি বের করে গুলি চালানোর চেষ্টা চালায়। তাৎক্ষনিক তাকে হ্যান্ডকফ পরিয়ে তার কোমরের দুই পাশে থেকে দুটি ইউএসএ তৈরি ২টি পিস্তল, চারটি ম্যাগজিন ও ১০ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করে থানায় নেওয়া হয়।
তিনি আরো জানান, আবু সাইদ টুনু প্রায় ১৭ বছর পুর্বে আখেরুল নামের এক ব্যক্তিকে হত্যা করে। সেই মামলায় তার ৩২ বছরের জেল হয়। দির্ঘদিন বিদেশে পলাতক থাকার পর দেশে ফিরে উচ্চ আদালত থেকে সে জামিনে ছিল। জামিনে থেকে সে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছিল। খোজ নিয়ে জানা গেছে, তার পরিবারের অনেক সদস্য সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *