মুজিবনগরে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় চোখ হারেতে বসেছে সবেদা খাতুন, মামলা দায়ের

মেহেরপুরের মুজিবনগরে মধ্য বয়সী মহিলা সবেদা খাতুনকে (৬৫) পূর্ব শত্রুতার জের ধরে  রক্তাক্ত জখম করেছে  প্রতিপক্ষরা, লাঠির আঘাতে তার বাম চোখ হারাতে বসেছে। সবেদা খাতুন মুজিবনগর উপজেলার আনন্দবাস পূর্বপাড়ার আইচ মল্লিকের স্ত্রী। এ বিষয়ে মুজিবনগর থানায় ২৩ শে মার্চ দুপুরে আহতের  মেয়ে বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে।
স্হানীয় ও মামলার সূত্রে জানা যায় ২২শে মার্চ আনুমানিক সকাল ৭টার দিকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বাঁশের লাঠি ও লোহার রড নিয়ে বাড়ির ভিতর প্রবেশ করে মামলার আসামী আনন্দবাস পূর্বপাড়ার আমজাদ মাষ্টারের ছেলে  হামদ, রমজান, আহসান, ইমন, আমির, কবির এবং আসামী রমজানের স্ত্রী সাজিদা খাতুন হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথাড়ি ভাবে  সবেদা খাতুন বাম চোখে ও মুখে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। এক পর্যায়ে সবেদাকে মাথার চুল ও পড়নের কাপড় ধরিয়া মাটিতে ফেলিয়া তার শ্লীলতাহানী ঘটায় এবং গলায় থাকা সোনার চেইন ছিনিয়ে নেয় আহতের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে আসামীরা পলায়ন করে। স্থানীয়রা সবেদা খাতুনকে উদ্ধার করে মুজিবনগর স্বাস্হ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আহত সবেদা খাতুন হাসপাতালে ভর্তি আছে।

এ বিষয়ে মুজিবনগর থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী কামাল হোসেন জানান মামলাটি তদন্ত চলছে তদন্ত করে মামলার সত্যতা পেলে আসামীদের আটক করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *