মুজিবনগরে কুলাঙ্গার সন্তানদের রডের আঘাতে জন্মদাত্রী মা গুরুতর আহত

মেহেরপুরের মুজিবনগরে জমিজায়গা নিয়ে বিরোধে সন্তানদের লাঠি ও রডের আঘাতে গুরুতর ভাবে আহত হয়ে হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছে জন্মদাত্রী মমতাময়ী ৬৪ বছরের বৃদ্ধ মা আহাতন খাতুন।

জানা গেছে শুক্রবার সকালে মুজিবনগর উপজেলার গোপালনগর গ্রামের মৃত করিম সর্দারের স্ত্রী আহাতন খাতুন (৬৪)গোপালনগর যাত্রী ছাওনির কাছে তার নিজের জমিতে সেচ ও সার দেওয়ার জন্য বড় ছেলে সিরাজুল সর্দারকে বলে, সিরাজুল সর্দার মার কথামত জমিতে সার ও সেচ দিচ্ছিল এ সময় মেজ ছেলে রেজাউল সর্দার ও ছোট ছেলে জিনারুল সর্দার ও তাদের স্ত্রী রেহেনা খাতুন ও সিমা খাতুন এবং বোড় বোন রামনগর গ্রামের নূর ইসলামের স্ত্রী সুফিয়া খাতুন সেই জমি নিজেদের দাবি করে বড় ভাই সিরাজুলকে মারধর শুরু করে এ খবর পেয়ে তাদের মা আহাতন খাতুন ও ছোট বোন নাজমা খাতুন ছুটে এসে সিরাজুলকে বাঁচাতে গেলে তারা মা ও ছোট বোনকে লোহার রড বাঁশের লাঠি দিয়ে এলোপাথাড়ি মেরে রক্তাক্ত জখম করে পরে মানুষ জন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায় এলাকার লোক জন তাদের উদ্ধার করে মুজিবনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে মুজিবনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান আহাতন খাতুনের মাথার বাম পাশে লাঠির বা রডের আঘাতে  অনেক খানি কেটে গেছে এবং সেলাই পড়ছে এবং বাম পায়ের হাটু সহ শরিরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন আছে তিনি হাসপাতালে ভর্তি আছে। আহত সিরাজুল ও নাজমা খাতুনের আঘাত গুরুতর না হওয়াই তারা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে যায়। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত মুজিবনগর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *