মুজিবনগরের সোনাপুরে প্রথম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

মেহেরপুর মুজিবনগরে প্রথম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। শনিবার আড়ায়টার দিকে মুজিবনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রোগিকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করে মুজিবনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ সাইফুল্লাহ মোর্শেদ জানান রেপকেস হওয়ায় মেয়েটিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে মেহেরপুর সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। বিকালে ধর্ষনের শিকার মেয়েটিকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সদর হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলছেন প্রাথমিক ভাবে গোপনাঙ্গে ক্ষত চিহ্ন পাওয়া গেছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মুজিবনগর উপজেলার সোনাপুর গ্রামের শাহাবুদ্দীনের ছেলে ৭ম শ্রেণীর ছাত্র মাজেদুল হক পাশ্ববর্তী বাড়ির আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে রিতা খাতুনকে ফল খাওয়ানোর নাম করে রাস্তায় থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে তাকে পাশ্ববর্তী মাঠে নিয়ে গিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। অসুস্থ হয়ে পড়লে মেয়েটি তার বাড়ি ফিরে এসে বিষয়টি তার অভিভাবদের জানায়। গোপনাঙ্গে রক্তক্ষরণ শুরু হলে অভিভাবকরা প্রথমে মুজিবনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক রাফিক উন নবী সিয়াম জানান, প্রাথমিকভাবে মেয়েটির গোপানাঙ্গে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। পুলিশের পক্ষ থেকে পদক্ষেপ নিলে মেডিকেল টিম গঠনের মাধ্যমে শিশুটিকে পরীক্ষা-নিরিক্ষা করা হবে। তারপর নিশ্চিত করে বলা যাবে ধর্ষন কি না।
মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, কাজী কামাল হোসেন জানান, ঘটনা জানার পর পরই ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে এবং আসামীকে ধরার চেষ্টা চলছে। তবে এখনো কেউ মামলা করেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *